• , |
  • ঢাকা, বাংলাদেশ ।
সর্বশেষ নিউজ
* সমমনাদের সঙ্গে বিএনপির বৈঠক : রোডমার্চ, লংমার্চ ও সমাবেশের আসছে * আদালতের রায়ের পর শিক্ষার্থীদের আন্দোলনের যৌক্তিকতা নেই: কাদের * রোববার কোটা বিরোধীরা সড়কে নামলেই কঠোর ব্যবস্থা নেবে সরকার * পার্লামেন্টে আস্থা ভোটে হারলেন নেপালের প্রধানমন্ত্রী * রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন শুরু করতে ইতিবাচক মিয়ানমার : পররাষ্ট্রমন্ত্রী * বাংলাদেশ সব দিক থেকেই ডুবে গেছে : আমীর খসরু * আবারো মিয়ানমারের শতাধিক সেনা ও বিজিপি সদস্য পালিয়ে এসেছে টেকনাফে * শনিবার সংবাদ সম্মেলন করে পরবর্তি কর্মসূচী ঘোষণা শিক্ষার্থীদের * অ্যান্ডারসনের বিদায়ী টেস্টে ইংল্যান্ডের দাপুটে জয় * রাবি শিক্ষার্থীদের রেললাইন অবরোধ

আবদুল হামিদের জীবনকে অর্থহীন বললেন আসিফ নজরুল

news-details

ছবি : এনএনবিডি


রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ আজ টানা দ্বিতীয় মেয়াদ ১০ বছর পূর্ণ করে বিদায় নিয়েছেন। নতুন রাষ্ট্রপতি হিসেবে শপথ নিয়েছেন। মো. সাহাবুদ্দিন। 

সোমবার বঙ্গভবনে নতুন রাষ্ট্রপতির শপথের পর নানা আয়োজনে রাজসিক সংবর্ধনা দেয়া হয় বিদায়ী রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদকে। প্রটোকল নিয়ে গুলশানের নিজ বাসা রাষ্ট্রপতি লজে ওঠেন তিনি। 

কিন্তু রাষ্ট্রপতির দীর্ঘ দশ বছরের জীবনকে অর্থহীন বলে নিজের ভ্যারিফায়েড ফেসবুক পেজে একটি পোস্ট দিয়েছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগের অধ্যাপক ড. আসিফ নজরুল। 

ফেসবুক পোস্টে তিনি বলেন, জনাব আবদুল হামিদ একটা অর্থহীন রাষ্ট্রপতির জীবন কাটালেন।  

পোস্টে তিনি তার বিরুদ্ধে অর্থ অপচয়ের অভিযোগ তুলে বলেন, তিনি বিদেশে চিকিৎসার নামে বিরাট বহর নিয়ে গিয়েছিলেন। 

তার জীবনের অর্জনের কথা উল্লেখ করে তিনি লিখেছেন, কনভোকেশনে মাঝে মাঝে সস্তা কথা বলা হচ্ছে রাষ্ট্রপতি জীবনের হাইলাইটস।

ড. নজরুলের পোস্টটিতে তিন ঘন্টার ব্যবধানে  ১১ হাজার মানুষ লাইক দিয়েছেন। মন্তুব্য করেছেন প্রায় সাড়ে আটশ’ মানুষ। পোস্টটি শেয়ার করেছেন প্রায় ২০০ জন ফেসবুক ব্যবহারকারী।

মোহাম্মদ মাসুদ খান নামে একজন মন্তব্যে লিখেছেন, রাষ্ট্রের অপচয় করে দেশের মানুষকে করে গেলেন গণতন্ত্রহীন। 

নাসির উদ্দিন নামে আরেকজন লিখেছেন, এই জাতিকে বিনোদন ছাড়া আর কিছু দিতে পারেনি।

জাহেদুল ইসলাম লিখেছেন, রাষ্ট্রপতি নামের কলঙ্ক। তাকে সিঙ্গাপুরে বনবাসে পাঠানো উচিত,ওখানে বসে বসে চিকিৎসা সেবা নেক আজীবনের জন্য।

এমন নানা তীর্যক মন্তব্য লিখেছেন ফেসবুক ব্যবহারকারীরা। 


এনএনবিডি ডেস্ক

মন্তব্য করুন

1 মন্তব্য