• , |
  • ঢাকা, বাংলাদেশ ।
সর্বশেষ নিউজ
* জাতীয় ঈদগাহে প্রধান জামাত অনুষ্ঠিত * আগামীকাল পবিত্র ঈদুল আজহা * সৌদি আরবে জর্ডান ও ইরানের ১৯ হজযাত্রীর মৃত্যু * শুভেচ্ছা * ফ্রিজে গরুর মাংস পাওয়ায় মধ্যপ্রদেশে ১১ মুসলিমের বাড়ি গুঁড়িয়ে দিল পুলিশ * সেন্টমার্টিন পরিস্থিতি নিয়ে ছাত্রশিবিরের উদ্বেগ প্রকাশ * সীতাকুণ্ডে গঙ্গাস্নানে নেমে পদদলিত হয়ে দুই শিশুর মৃত্যু * মৌসুমের শুরুতেই দুই বিভাগে ভারী বৃষ্টি ও বন্যার শঙ্কা * গাজার দক্ষিণে কৌশলগত যুদ্ধবিরতি ইসরাইলের * সোনালী ব্যাংককে ১ কোটি রুপি জরিমানা ভারতের কেন্দ্রীয় ব্যাংকের

এরশাদের বায়োপিক বানাতে চান বিদিশা

news-details

ছবি: সংগৃহীত


জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জীবনীনির্ভর ‘মুজিব : একটি জাতির রূপকার’ সিনেমা দেখে মুগ্ধ হয়েছেন বিদিশা এরশাদ। প্রশংসায় ভাসিয়েছেন সিনেমাটির নির্মাতা শ্যাম বেনেগাল ও কেন্দ্রীয় অভিনেতা আরিফিন শুভসহ সকলকে। বেসরকারি টেলিভিশনে দেওয়া সাক্ষাৎকারে জানিয়েছেন, সাবেক সেনাপ্রধান, জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান এবং প্রয়াত রাষ্ট্রপতি হুসেইন মুহাম্মদ এরশাদের জীবনের গুরুত্বপূর্ণ অংশ তুলে সিনেমা বানাতে চান।

ইচ্ছের কথা জানিয়ে বিদিশা বলেন, আমাদের দেশের ডিরেক্টর এবং আর্টিস্টরা এখন অনেক ক্রিয়েটিভ। তারা সুন্দর সুন্দর কাজ উপহার দিচ্ছেন। আমার মনে হয়, হুসেইন মুহাম্মদ এরশাদকে নিয়ে যদি বায়োপিক করা যায়, তাহলে তার সম্পর্কে দেশের মানুষ অনেককিছু জানতে পারবে। আমি আশাবাদী দেশকে একটি ভালো মুভি উপহার দিতে পারবো। 

বিদিশা বলেন, ‘শত্রুর সঙ্গে বসবাস’ নামে একটি বই লিখেছিলাম। এই বইটি নিয়ে মোস্তফা সরয়ার ফারুকী কাজ করতে চেয়েছিলেন। বইটি আমার বায়োগ্রাফি। এতে ডেফিনেটলি বিশাল জায়গা জুড়ে আমার জীবনে এরশাদ সাহেব আছে।

এসময় বিদিশা বলেন, ‘আমি চিন্তাভাবনা করছি হুসেইন মুহাম্মদ এরশাদের একটি বায়োপিক করলে কেমন হয়!’

‘মুজিব : একটি জাতির রূপকার’ সিনেমা প্রসঙ্গে বিদিশা বলেন, শেখ মুজিবুর রহমানকে নিয়ে যে বায়োপিক হয়েছে সেটা দেখার মতো হয়েছে। আমি রীতিমতো থান্ডার হয়েছি। যারা এখানে অভিনয় করেছেন তারা প্রাণপণ দিয়ে অভিনয় করেছে। বিশেষ করে আরিফিন শুভ।এই সিনেমা না দেখলে বাঙালি বুঝবে না শেখ হাসিনা কত কি লস করেছেন। আমরা সবাই জানি শেখ হাসিনা ১৫ আগস্টে তার পরিবারের সবাইকে হারিয়েছেন। কিন্তু মুজিব সিনেমা দেখলে সবাই বুঝবে স্বজন হারানোর কতো কষ্টের। আমি ৫০০ টাকা টিকেট কেটে এই সিনেমা দেখেছি। আমার কাছে মনে হয়েছে টিকেটের মূল্য বেশি। তাহলে সাধারণ মানুষ কি এই সিনেমা দেখতে হলে আসবে না? পশ শ্রেণীর মানুষরাই শুধু দেখবে? 

বিদিশা এরশাদ মনে করেন, মেহনতী মানুষ থেকে শুরু করে পরবর্তী জেনারেশন যেন এই সিনেমা দেখতে পারে সেই ব্যবস্থা করা উচিত। তিনি বলেন, প্রত্যেক জেলায় জেলায় যদি সিনেমাটির দেখানো যায় তাহলে আরও ভালো হতো এবং টিকেটের মূল্য আরও কমানো উচিত


এনএনবিডি ডেস্ক:

মন্তব্য করুন