• , |
  • ঢাকা, বাংলাদেশ ।
সর্বশেষ নিউজ
* এখনো নেভেনি এস আলম সুগার মিলের আগুন * রাজধানীর কামরাঙ্গীরচরে হোটেল-রেস্তোরাঁয় অব্যবস্থাপনা, আটক ২৪ * গাজীপুরে বেতন বৃদ্ধির দাবিতে মহাসড়কে শ্রমিকদের বিক্ষোভ * শিক্ষক রাজনীতি বন্ধে আচরণবিধি তৈরি করছে মন্ত্রণালয় * উপজেলা নির্বাচনে অংশ নিলে আজীবন বহিষ্কার : বিএনপি‘র হাইকমান্ড * ইউক্রেনে মার্কিন আব্রামস ট্যাংক ধ্বংস করে রুশ সেনাদের কৌতুক * আওয়ামী লীগের শিক্ষা বাজেট বিএনপির জাতীয় বাজেটের চেয়ে বেশি: শিক্ষামন্ত্রী * হ্যারিসের সঙ্গে গ্যান্টজের বৈঠক, নেতানিয়াহুকে সরানোর মার্কিন ইঙ্গিত! * অগ্নিকাণ্ডে পুড়ে গেছে ১ লাখ টন চিনির কাঁচামাল * গ্যাস ও বিদ্যুতের মূল্যবৃদ্ধিতে জামায়াতের নিন্দা

হাজীদের সুবিধার্তে সৌদি আরব মসজিদ আল-হারামের মাতাফে শিশুদের ঘোরাফেরা নিষিদ্ধ

news-details

ছবি : সংগৃহীত


মসজিদ আল-হারামের (গ্র্যান্ড মসজিদ) মাতাফ এলাকায় শিশুদের স্ট্রলারের ঘোরাফেরা নিষিদ্ধ করা হয়েছে।

তীর্থযাত্রীদের নিরাপত্তা ও স্বাচ্ছন্দ্য নিশ্চিত করতে সৌদি সরকার মাতাফ এলাকায় স্ট্রলারদের প্রবেশ নিষিদ্ধ করেছে। ২০২৪ সালের হজযাত্রাকে সামনে রেখে সরকার বেশ কিছু নীতিমালা চালু করেছে ।

সৌদি আরব সম্প্রতি মাতাফের নিচতলায় শিশুদের জন্য স্ট্রলারের উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে, পবিত্র কাবার আশেপাশের এলাকা যেখানে তীর্থযাত্রীরা প্রদক্ষিণ করে। 

এই পবিত্র স্থানটিতে নিরাপত্তা বাড়ানো এবং ভিড় নিয়ন্ত্রিত করার জন্য গ্র্যান্ড মসজিদ এবং নবি মসজিদের বিষয়ক তত্ত্বাবধানের জন্য জেনারেল অথরিটি এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে। 

কর্তৃপক্ষ স্পষ্ট করেছে যে, মাতাফের নিচতলায় স্ট্রলার নিষিদ্ধ থাকলেও মক্কার গ্র্যান্ড মসজিদের মধ্যে নির্দিষ্ট এলাকায়, যেমন মাতাফের উপরের তলাগুলোতে তাদের অনুমতি দেওয়া হয়েছে। 

স্ট্রলারগুলো মাস'আতেও ব্যবহার করা যেতে পারে। এছাড়া মেঝেতে খুব বেশি ভিড় না হলে কিং ফাহদ সম্প্রসারণ এলাকার মাধ্যমে সাফা এবং মারওয়ার মধ্যে চলমান এলাকা এটি ব্যবহার করা যেতে পারে।

এটি  গুরুত্বসহকারে লক্ষণীয় যে এই নিষেধাজ্ঞাটি ২০২৪ সালের হজ যাত্রার প্রস্তুতির একটি অংশ। এই পবিত্র অনুষ্ঠানকে ঘিরে আগামী জুনে প্রায় ২০ লাখ হজযাত্রী আসবে বলে আশা করা হচ্ছে।

সৌদি সরকারের মতে, তীর্থযাত্রীদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে এবং বিশেষ করে হজ এবং ওমরাহ মৌসুমে তাদের সর্বোত্তম স্তরের সুবিধা দিতে এই নিয়ম তৈরি করা হয়েছে।

এছাড়া সৌদি সরকার বিভিন্ন দেশের সাথে চুক্তি করেছে। এই চুক্তির লক্ষ্য হজ ও ওমরাহ পালনকারীদের সুবিধার্থে।

হজযাত্রীদের অভিজ্ঞতা বাড়াতে এবং একটি সঠিক সম্পদ বরাদ্দের পরিকল্পনা নিশ্চিত করতে মসজিদ আল হারামকে কোডেড জোনে ভাগ করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে ।

মক্কার পবিত্র কাবা মুসলমানদের কাছে তাৎপর্যপূর্ণ গুরুত্ব বহন করে। সারা বিশ্ব থেকে অনেক মানুষ প্রার্থনা করতে এবং ওমরাহ এবং হজ করতে যান।

প্রতিবেদন অনুসারে, সৌদি আরব ২০২৩ সালে সফলভাবে ২০ লাখেরও বেশি হজযাত্রী এবং ১ কোটি ৩০ লাখেরও বেশি হজযাত্রী ওমরাহ পালনের জন্য সামাজিক দূরত্বের বিধিনিষেধের মুক্তির ইঙ্গিত দেয়। 

সৌদি আরব আসন্ন হজযাত্রার মৌসুম ২০২৪-এর জন্য প্রস্তুতি শুরু করার সাথে সাথে এই পদক্ষেপগুলো একটি সহজ এবং অর্থপূর্ণ ধর্মীয় অভিজ্ঞতার সুবিধা প্রদানের সাথে সাথে হাজীদের কল্যাণ এবং নিরাপত্তা নিশ্চিতে সরকারের প্রতিশ্রুতিকে জোরদার করে।

 

 

 

 


এনএনবিডি ডেস্ক:

মন্তব্য করুন