• , |
  • ঢাকা, বাংলাদেশ ।
সর্বশেষ নিউজ
* সীমান্তে হত্যাকাণ্ড পরিকল্পিত কিছু না, এটি দুর্ঘটনা : প্রধানমন্ত্রীর উপদেষ্টা * দেশের ২৪ শতাংশ বাসের ফিটনেস নেই : টিআইবি * বগুড়ায় নিখোঁজ ছাত্রের লাশ মিলল গোয়াল ঘরে * জলবায়ু উদ্বাস্তুদের রক্ষায় আইনি সংজ্ঞা প্রয়োজন * মেজর হাফিজকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ * এখনো নেভেনি এস আলম সুগার মিলের আগুন * রাজধানীর কামরাঙ্গীরচরে হোটেল-রেস্তোরাঁয় অব্যবস্থাপনা, আটক ২৪ * গাজীপুরে বেতন বৃদ্ধির দাবিতে মহাসড়কে শ্রমিকদের বিক্ষোভ * শিক্ষক রাজনীতি বন্ধে আচরণবিধি তৈরি করছে মন্ত্রণালয় * উপজেলা নির্বাচনে অংশ নিলে আজীবন বহিষ্কার : বিএনপি‘র হাইকমান্ড

পিটিআই সমর্থিতরা জিতলে কেমন হবে সরকার কী হবে ইমরান খানের

news-details

ছবি : সংগৃহীত


পাকিস্তানে নির্বাচনের দীর্ঘ সময় পেরিয়ে গেলেও এখনো আসেনি পূর্ণাঙ্গ ফলাফল। নির্বাচনের এ ফলাফলকে সামনে রেখে চলছে নানা সমীকরণ। দেশটির অন্যতম রাজনৈতিক দল পাকিস্তান তেহরিক-ই-ইনসাফ (পিটিআই) সমর্থিত প্রার্থীরা জিতলে সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের ভাগ্যে কী ঘটবে তা নিয়েও চলছে নানা সমীকরণ।

শুক্রবার (০৯ ফেব্রুয়ারি) ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভির এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, নির্বাচনে স্বতন্ত্র ও পিটিআই সমর্থিত প্রার্থীরা সাবেক প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফকে ছাড়িয়ে যাওয়ার প্রত্যাশা করছেন। তবে ফলাফল ঘোষণায় ধীরগতির কারণে পরিস্থিতি আরও ঘোলাটে হয়ে পড়ছে। এ জন্য নির্বাচনে কারচুপিরও অভিযোগ করছে পিটিআই।

ইমরান খানের দল পিটিআইয়ের প্রধান সংগঠক এক ভিডিওবার্তায় দাবি করেছেন যেন তাদের সমর্থিত প্রার্থীরা সম্ভাব্য দুই-তৃতীয়াংশ সংখ্যাগরিষ্ঠতার নিয়ে ফেডারেল সরকার গঠন করতে পারে। তবে নির্বাচনের সময় দেশজুড়ে ইন্টারনেট সমস্যা নির্বাচনী অনিয়ম ও উদ্বেগকে আরও উসকে দিচ্ছে।

ইমরান খানের কারাদণ্ড পিটিআইয়ের রাজনৈতিক পরিস্থিতিকে আরও জটিল করে তুলেছে। সরকারি অফিস থেকে ১০ বছরের নিষেধাজ্ঞার পাশাপাশি তাকে রাজনীতি থেকে ২০৩৪ সাল পর্যন্ত অবাঞ্ছিত ঘোষণা করা হয়েছে। একদিকে তার অনুপস্থিতি অন্যদিকে প্রধান সহযোগীরা পলাতক বা জেলে থাকার কারণে দলীয় কাঠামো আরও দুর্বল হয়ে পড়েছে।

নির্বাচনে আদালতের নির্দেশে পিটিআইয়ের দলীয় প্রতীক ব্যাটকে নিষিদ্ধ করা হয়েছে। অন্যদিকে দলীয় সব প্রার্থী কেবল স্বতন্ত্রভাবে নির্বাচন করছেন। এ ছাড়া দলের প্রধানের পদেও এসেছে পরিবর্তন। বর্তমানে ইমরান খানের স্থলাভিষিক্ত হয়েছেন গওহর আলি খান। তবে তিনি ইমরান খানের মতো তেমন জনপ্রিয় নন।

পিটিআই সমর্থিত প্রার্থীরা জিতলে যা ঘটতে পারে

নির্বাচনে যদি ইমরান খানের দল সমর্থিত প্রার্থীরা জিতে যান তাহলে তারা নতুন করে কোনো কমন ব্যানারে নিচে এসে নতুন সরকার গঠন করতে পারবেন।

নিজেরা সরকার গঠন না করলেও অন্য কোনো দলের সাথে কোয়ালিশনের মাধ্যমে স্বতন্ত্র প্রার্থীরা সরকার গঠন করতে পারবেন।

পিটিআই সমর্থিত প্রার্থীরা সংখ্যাগরিষ্ঠতা পেয়ে সরকার গঠন করলে তারা ইমরান খানের তিন মামলার ব্যাপারে আদালতে যেতে পারেন।

নতুন সরকার গঠনের পর এ জোট সরকারি অফিসে ইমরানের নিষেধাজ্ঞা বা নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতার আদেশ পুনরায় বিবেচনার জন্য নির্বাচন কমিশনের কাছে পাঠাতে পারেন।


আন্তর্জাতিক ডেস্ক

মন্তব্য করুন