• , |
  • ঢাকা, বাংলাদেশ ।
সর্বশেষ নিউজ
* প্রচণ্ড মাথাব্যথা হতে পারে স্ট্রোকের লক্ষণ * চলচ্চিত্র পরিচালক শফিক হাসান গ্রেফতার * উপনির্বাচনের ফলাফল: মহাজোট ৪, জাতীয় পার্টি ১, স্বতন্ত্র ১ * জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ে স্কিল-বেইজড কোর্সের ভর্তি কার্যক্রম শুরু * সাজা শেষে ভারত থেকে ফিরলেন ৩ বাংলাদেশি নারী * বাংলাদেশে বিদ্যুৎ রফতানি, আপত্তি জানিয়ে আদানির নামে কলকাতায় মামলা * মিয়ানমারে জরুরি অবস্থার সময় বাড়াল জান্তা * চ্যাটজিপিটির লেখা সনাক্ত করতে সফটওয়্যার চালু * ইবি শিক্ষার্থী সানির লেখা উপন্যাসের মোড়ক উন্মোচন * যুক্তরাষ্ট্র বা জার্মানির ট্যাঙ্ক ধ্বংস বা জব্দ করতে পারলেই ৫০ লাখ রুবল পুরস্কার

সহজ প্রতিপক্ষ পেয়ে এমবাপের ৫ গোলে পিএসজির ৭

news-details

পিএসজির গোল উৎসব


কোপা ডি ফ্রান্সের শেষ ৩২-এর খেলা। প্রতিপক্ষ একটি অ্যামেচার দল, পায়েস ডি ক্যাসল। অ্যামেচার দলটিকে পেয়ে রীতিমত গোল উৎসবে মেতে উঠেছিল প্যারিস সেন্ট জার্মেই (পিএসজি)। বিশ্বকাপের ফাইনালে হ্যাটট্রিক করা কিলিয়ান এমবাপে একাই করলেন ৫ গোল।

১১ মিনিটের ব্যবধানে হ্যাটট্রিক পূরণ করেন তিনি। গোল উৎসবে মেতে উঠে প্রতিপক্ষকে ৭-০ ব্যবধানে হারিয়ে শেষ ষোলোয় নাম লিখেছে পিএসজি। যেখানে তারা প্রতিদ্বন্দ্বীতা করবে ফ্রেঞ্চ লিগ ওয়ানের দল মার্সেইয়ের।

প্রতিপক্ষের নাম পায়েস ডি ক্যাসল হওয়ার পরও কোচ ক্রিস্টোফে গ্যালতিয়ের বলেছিলেন, তিনি শক্তিশালী দলই মাঠে নামাবেন। সে কথাই রক্ষা করেছেন তিনি। শুধুমাত্র লিওনেল মেসিকে বিশ্রাম দিলেন। নেইমার, এমবাপেদের নিয়ে সাজালেন তার সেরা একাদশ।

যার ফলে অ্যামেচার দলটিকে নিয়ে পুরো ম্যাচে বলতে গেলে ছেলেখেলাই করেছে পিএসজি। বিশেষ করে কিলিয়ান এমবাপে। বিশ্বকাপে সর্বোচ্চ গোলদাতার পুরস্কার জয় এবং ফাইনালে হ্যাটট্রিক করার পর এটাই তার প্রথম হ্যাটট্রিক। শুধু তাই নয়, পিএসজির ইতিহাসে কোনো প্রতিযোগিতামূলক ম্যাচে এই প্রথম ৫ গোল করার রেকর্ড গড়েন তিনি।

এ নিয়ে চলতি মৌসুমে ২৪ ম্যাচে তার নামের পাশে যোগ হলো ২৫ গোল। সব মিলিয়ে পিএসজির জার্সিতে হলো ১৯৬ গোল। পিএসজির হয়ে সর্বোচ্চ গোলদাতা এডিনসন কাভানির চেয়ে আর মাত্র ৪ গোল পিছিয়ে তিনি।

ম্যাচ শেষে কিলিয়ান এমবাপে বলেন, ‘আমরা এখানে এসেছিলাম প্রতিপক্ষকে সম্মান জানাতেই। সে কারণেই আমরা আমাদের মত সেরা খেলাটাই খেলার চেষ্টা করেছি। এ কারণেই এই ফল হলো এবং আমরা এতে খুব খুশি। তবে তাদের জন্যও এটা ছিল দারুণ এক সুযোগ, সর্বোচ্চ পর্যায়ে খেলার।’

ফ্রান্সের উত্তরাঞ্চলীয় শহর লেন্সের মাঠ স্টেডে বোলায়ের্ট ডেলেলিসে অনুষ্ঠিত হয় ম্যাচটি। ম্যাচের প্রথম আধাঘণ্টা কোনোমতে পিএসজির আক্রমণ ঠেকিয়ে রাখতে পেরেছিলো পায়েস ডি ক্যাসল। কিন্তু ২৯তম মিনিটে গোলের তালা খোলেন এমবাপে। এরপর বালির বাধের মত ভেঙে যায় তাদের সব প্রতিরোধ।

 


স্পোর্টস ডেস্ক:

মন্তব্য করুন