• , |
  • ঢাকা, বাংলাদেশ ।
সর্বশেষ নিউজ
* জাতীয় ঈদগাহে প্রধান জামাত অনুষ্ঠিত * আগামীকাল পবিত্র ঈদুল আজহা * সৌদি আরবে জর্ডান ও ইরানের ১৯ হজযাত্রীর মৃত্যু * শুভেচ্ছা * ফ্রিজে গরুর মাংস পাওয়ায় মধ্যপ্রদেশে ১১ মুসলিমের বাড়ি গুঁড়িয়ে দিল পুলিশ * সেন্টমার্টিন পরিস্থিতি নিয়ে ছাত্রশিবিরের উদ্বেগ প্রকাশ * সীতাকুণ্ডে গঙ্গাস্নানে নেমে পদদলিত হয়ে দুই শিশুর মৃত্যু * মৌসুমের শুরুতেই দুই বিভাগে ভারী বৃষ্টি ও বন্যার শঙ্কা * গাজার দক্ষিণে কৌশলগত যুদ্ধবিরতি ইসরাইলের * সোনালী ব্যাংককে ১ কোটি রুপি জরিমানা ভারতের কেন্দ্রীয় ব্যাংকের

আবারো ফাইনালের পথে মুম্বাই

news-details

ছবি : সংগৃহীত


স্বপ্নের ফাইনালে ইতোমধ্যেই পৌঁছে গেছে চেন্নাই সুপার কিংস। ফাইলে কে হতে যাচ্ছে চেন্নাই এর মুখোমুখি তা নিয়ে চলছে নানা জল্পনা-কল্পনা । লক্ষ্ণৌ সুপার জায়ান্টসকে ৮১ রানের বড় ব্যবধানে হারিয়ে সেই কাঙ্খিত ফাইনালের পথে আরও এক পা এগিয়ে গেল মুম্বই ইন্ডিয়ান্স। বুধবার রাতে এলিমিনেটর ম্যাচে মুম্বাই আগে ব্যাট করে ৮ উইকেটে ১৮২ রান সংগ্রহ করে। জবাবে ১৬.৩ ওভারে ১০১ রানে অলআউট হয়ে যায় লক্ষ্ণৌ।

আগামীকাল শুক্রবার দ্বিতীয় কোয়ালিফায়ারে গুজরাট টাইটান্সের মুখোমুখি হবে মুম্বই ইন্ডিয়ান্স।

এদিন টস জিতে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নেন মুম্বই ইন্ডিয়ান্স অধিনায়ক রোহিত শর্মা। পাওয়ার প্লে-তে ৩৮ রানের মধ্যে দুই ওপেনারকে হারিয়ে কিছুটা চাপে পড়ে তারা। এরপর ক্যামেরন গ্রিন ও সূর্যকুমার যাদব জুটি এগিয়ে নেয় দলকে। তারা দুজন তৃতীয় উইকেটে ৩৮ বলে ৬৬ রান যোগ করে।

এরপর দ্রুত ফেরেন তারা ‍দুজন। ১০৪ রানের মাথায় সূর্য ৩৩ রান করে ও ১০৫ রানের মাথায় ফেরেন গ্রিন। তার ব্যাট থেকে ২৩ বলে ৬ চার ও ১ ছক্কায় আসে সর্বোচ্চ ৪১ রান।

এরপর তিলক ভার্মার ২২ বলে করা ২৬ ও নেহাল ওয়াদেরা ১২ বলে ২৩ রান করে দলীয় সংগ্রহকে বড় করতে দারুণ অবদান রাখেন। তাতে ২০ ওভারে ৮ উইকেট হারিয়ে ১৮২ রানের বড় সংগ্রহ পায় মুম্বই ইন্ডিয়ান্স।

লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে পাওয়ার প্লে-তে লক্ষ্ণৌও ২ উইকেট হারায়। প্রিরাক মানকাদ ৩ রান করে ও ঝড়ের আভাস দিয়ে কাইল মায়ার্স ফেরেন ১৮ রান করে।

এরপর মার্কাস স্টয়েনিস ও ক্রুনাল পান্ডিয়া জুটি স্বপ্ন দেখাতে শুরু করেন লক্ষ্ণৌকে। এই জুটি ভাঙার পর ব্যাটিং বিপর্যয়ে পড়ে ১৬.৩ ওভারেই অলআউট হয়ে যায় লক্ষ্ণৌ।

স্টয়েনিস ৫ চার ও ১ ছক্কায় ৪০ রান করেন। এছাড়া মায়ার্স ১৮ ও দীপক হুদা করেন ১৫ রান। বাকিদের মধ্যে ৮ রানের বেশি কেউ করতে পারেনি।

লক্ষ্ণৌর ব্যাটিং লাইনআপ এলেমোলে করে দেন আকাশ মাধওয়াল। তিনি ৩.৩ ওভার বল করে মাত্র ৫ রান দিয়ে ৫ উইকেট। আইপিএলের ইতিহাসে প্লে-অফে এটিই সেরা বোলিং ফিগার। ম্যাচসেরাও হন তিনি।

তার আগে লক্ষ্ণৌর নাভীন-উল-হক ৪ ওভারে ৩৮ রান দিয়ে ৪টি ও যশ ঠাকুর ৩ ওভারে ২৪ রান দিয়ে ৩টি উইকেট নিয়েছিলেন।

ইতোমধ্যে ফাইনাল নিশ্চিত করেছে চেন্নাই সুপার কিংস। আগামীকাল ফাইনালে যাওয়ার লড়াইয়ে মুখোমুখি হবে গুজরাট ও মুম্বাই। রোববার রাতে অনুষ্ঠিত হবে ফাইনাল।


এনএনবিডি ডেস্ক:

মন্তব্য করুন